গিনেস বুকে নাম অন্তর্ভুক্ত করে বিশ্ব রেকর্ড অর্জন করলেন ব্রাক্ষণবাড়িয়া নাসিরনগরের যুবক পার্থ

0
578

মোঃ আব্দুল হান্নান নাসিরনগর প্রতিনিধি,, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ফান্দাউক গ্রামের প্রয়াত জগদীশ চন্দ্র দেবের বিএসএস পড়ুয়া ফান্দাউক বাজারের ব্যবসায়ী কনিষ্ঠ পুত্র পার্থ চন্দ্র দেব  পৃথিবীর সবচেয়ে বড়  দৈর্ঘ্যের সেফটি পিনের চেইন তৈরী করে গড়লেন নতুন এক ইতিহাস। যা এখন বিশ্ব রেকর্ড।চলতি বছরের ১২ ফেব্রুয়ারি রাত ৯: ০১ মিনিট সেই মাহেন্দ্রক্ষণ,যখন গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম লেখালেন অদম্য যুবক পার্থ চন্দ্র দেব।

নিজেদের পারিবারিক ব্যবসা দেখা শোনা  ও পড়াশোনার পাশাপাশি নতুন কিছু করার তাগিদ অনুভব করে পার্থ।গুগলে সার্চ করে জানতে পারে ২০১৮ সালে ভারতের গুজরাটে হার্শা নান ও নাভা নান ১৭৩৩.১ মিটার দৈর্ঘ্যের পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ও দীর্ঘ চেইন তৈরী করে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম অন্তর্ভুক্ত করে।এই রেকর্ড অতিক্রম করে নতুন বিশ্ব রেকর্ডের স্বপ্ন বাস্তবায়নের দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে শুরু হয় পার্থ দেবের মিশন।

নিজেদের  ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ১,৮৭,৮২৩ টি সেফটিপিন  একের পর এক গেঁথে গেঁথে দিন রাত পরিশ্রম করে পূর্বের ইতিহাস করা  পৃথিবীর সবচেয়ে বড় চেইনটির চেয়ে ৬৭০ মিটার দীর্ঘ একটি চেইন তৈরী করে পার্থ।
এ চেইন তৈরীতে তার ৪৫ দিন ব্যয় হয় অার সময় লাগে ২৪১ ঘন্টা ৪২ মিনিট।সময়ের হিসাব করার জন্য সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ব্যবহার করা হয়েছে। পার্থ দেব কারো সাহায্য ছাড়া  নিজেই চেইন তৈরির পুরো কাজ সম্পন্ন করে এবং গত  ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শুক্রবার  তার প্রায় অাড়াই মাইল দীর্ঘ সেফটিপিন দ্বারা তৈরী চেইনটি ফান্দাউক শ্রী শ্রী পাগল শংকর মন্দির প্রাঙ্গণে প্রদর্শন করে। সে সময় ফান্দদাউক গ্রামের প্রভাষক রাজীব আচার্য্য, পল্লব হালদার এবং সার্ভেয়ার মারজান শাহ্কে সাথে নিয়ে চেইনটির দৈর্ঘ্যের পরিমাণ  নির্ধারণ করা হয় ২৪০১.৮৩ মিটার।

এরপর সফল ভাবে সকল পরীক্ষা নিরিক্ষা সম্পন্ন করে ই মেইল মারফত সকল ডেটা প্রেরণ করা হয় গিনেস বুক কতৃর্পক্ষের কাছে।তারপর তো সব ইতিহাস! 
স্বপ্ন পূরণ হলো। অাজ পৃথিবীর সবচেয়ে বড় দৈর্ঘ্যের  চেইন তৈরী করে বিশ্ব রেকর্ড করা  যুবকটির নাম পার্থ চন্দ্র দেব। ইতিমধ্যেই কতৃর্পক্ষ বিশ্ব রেকর্ডের সার্টিফিকেট পাঠিয়েছে পার্থ চন্দ্র দেবের ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ফান্দাউক গ্রমের নিজ বাসার ঠিকানায়।

পার্থ জানায় এই ব্যাপারে অামার অনুপ্রেরনা বড় ভাই জয়ন্ত দেব ও বৌদি।
বিশ্ব রেকর্ড করা অদম্য যুবক পার্থ জানায় এবার  নিজের রেকর্ড ভাঙ্গার জন্য অামি প্রস্তুতি নিচ্ছি। সামনে  ষ্টেপলার পিন দ্বারা  এর চেয়ে বড় চেইন তৈরী করবো।

অাশা করা যাচ্ছে পার্থ চন্দ্র গেব এবার নিজের  রেকর্ডকে  অতিক্রম করে তার  কৃতিত্ব ও সফলতা দিয়ে  পুনরায় গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে দেবে বাংলাদেশের নাম। গিনিস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে পার্থ চন্দ্র দেবের নাম  অন্তর্ভুক্তিতে গৌরবান্বিত পুরো নাসিরনগরবাসি।