নাসিরনগর বুড়িশ্বর ইউনিয়নে কামরুল হুদার বিয়াই কমিটি গঠন নিয়ে শিক্ষকদের মাঝে চাপাক্ষোভ

0
289

ষ্টাপ রিপোটার ঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির বুড়িশ্বর ইউনিয়ন অন্যপন্থি শিক্ষকদের নিয়ে কামরুল হুদার বিয়াই কমিটি গঠনের বিষয়ে ইউনিয়নের অপরাপর শিক্ষকদের মাঝে চাপাক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। জানা গেছে শিক্ষক সমিতির নির্দেশ অনুসারে প্রতিটি ইউনিয়নে ইউনিয়ন কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত হয়। সেই মোতাবেক ইউনিয়ন কমিটি গঠন করতে গিয়ে আশুরাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ কামরুল হুদা নিয়ম ভঙ্গ করে অন্যপন্থি কিছু শিক্ষক ও তার বিয়াই কমিটি গঠন করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

নাসিরনগর সদর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অজিত কুমার দাস, শ্রীঘর উত্তর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোস্তফা কামাল, লক্ষীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা গোলশানারা, গঙ্গানগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সুশীল সূত্রধর, অজয় কুমার দাস, আশরাফ উদ্দিন সহ আরো বেশ কয়েক জন শিক্ষক শিক্ষিকা মোবাইল ফোনে এ প্রতিনিধী কে জনায়, প্রধান শিক্ষক কামরুল হুদা শিক্ষক সমিতি কমিটির উপজলা পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ন পদে আসীন হওয়ার জন্য নিয়ম বহিভূত ভাবে তার বিয়াই অন্যপন্থি ইছাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল কুদ্দুছ, তার আরেক বিয়াই যার বিরুদ্ধে স্কুলে অনুপস্থিতির অভিযোগ দীর্ঘ দিনের, যার বাড়িতে বিগত সংসদ নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী সৈয়দ এস এ কে একরামুজ্জামান সুখন কে নিয়ে উঠান বৈঠক করে ও উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি প্রার্থী আশিকুর রহমান চৌধুরী ফনির বাবা গঙ্গানগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোঃ শাহ আলম চৌধুরী, তার আত্মীয় বুড়িশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফরহাদ চৌধুরী ও কামরুল হুদার স্কুলের সহকারী শিক্ষক মোঃ সৈয়দ মিয়াকে দিয়ে একটি মনগড়া কমিটি তৈরী করে। এ কমিটি নিয়ে ইউনিয়নের ও উপজেলার অপরাপর শিক্ষকদের মাঝে চাপাক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।

তারা আরো জানান প্রধান শিক্ষক কামরুল হুদা তার উদ্দেশ্য হাসিলের জন্য বুড়িশ্বর ইউনিয়নের সিংহগ্রাম দক্ষিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শ্রেষ্ট বিদ্যালয় এবং সুপ্রীতি রানী হালদার শ্রেষ্ট প্রধান শিক্ষিকা নির্বাচিত হওয়া সত্বে ও উক্ত কমিটিতে সুপ্রীতি রানী হালদার ও তার স্কুলের কোন শিক্ষককে স্থান দেয়নি। ইউনিয়ন ও উপজেলার অপরাপর শিক্ষকরা কামরুল হুদা ও তার বিতর্কৃত কমিটির লোকজনের হাত থেকে রক্ষা পেতে ও বিষয়টি সুষ্ট তদন্ত পূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ সংসদীয় ২৪৩ নাসিরনগর আসনের মাননীয় সংসদ সংসদ্যের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।