ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় যৌতুকের বলি হলেন গৃহবধু ইয়াছমিন,স্বামী সাইফুল পলাতক বিদেশ যাওয়ার চেষ্টা-৫জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ

0
228

আখাউড়া প্রতিনিধি মোঃ মোশারফ হোসেন কবির,,
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় যৌতুকের জন্য বলি হলেন গৃহবধু ইয়াছমিন । সৌদি প্রবাসী সদ্য আগত স্বামী সাইফুল পলাতক রয়েছে বলে সংবাদ পাওয়া যায়। শনিবার সকাল সাড়ে দশটায় কসবা পৌরসভার বিশাবাড়ি গ্রামের মুন্সি ভিলায় যৌতুকের জন্য প্রায় নির্যাতন করত। গত শুক্রবার দিবাগত রাতে স্বামী সাইফুল ইসলাম তিন লাখ টাকা যৌতুক দিতে বলেন কিন্ত ইয়াছমিন তার স্বামী সহ স্বামীর বাড়ির লোকজনকে অপরাকতা জানালেই ইয়াছমিনকে জীবন দিতে হয়েছে বলে তার বাবা আব্দুল আউয়াল স্থানীয় সাংবাদিকদেরকে জানান।ঘটনার দিন থেকে সাইফুল ইসলাম পলাতক থেকে বিদেশে পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করছে বলে নিহত ইয়াছমিন আক্তারের বাবা তাও জানান।

এই দিকে প্রাথমিক অবস্থায় স্বামীর বাড়ির ঘরে বিদ্যুৎ এর ফ্যানের সাথে উড়না দিয়ে গলায় ফাঁস লাড়িয়ে আত্বহত্যা করার সংবাদ পেলে কসবা থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ উদ্ধার করেন বলে থানা পুলিশ জানান।
গৃহবধু ইয়াছমিন এর বাবা আব্দুল আউয়াল সাংবাদিকদেরকে আরও জানান; জামাই সাইফুল ইসলাম ও তার মা শেফালী আক্তার পরিকল্পিত ভাবে যৌতুকের জন্য হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখেন। পুলিশী সংবাদে আমরা খবর পেয়ে কুমিল্লা জেলার বাঙ্গরা থানার সীমানাপাড় থেকে কসবা থানায় হাজির হয়ে স্বামী সাইফুল ইসলামসহ তার পরিবারের ৪জনের বিরুদ্ধে আব্দুল আউয়াল বাদী হয়ে কসবা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন বলে জানান।

কসবা থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ লোকমান হোসেন বলেন,থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে তবে ইয়াছমিনের বাবা আব্দুল আওয়াল বাদী হয়ে স্বামী সাইফুল ইসলামসহ ৫জনকে আসামী করে অভিযোগ দিয়েছেন।
সাইফুল ইসলাম পলাতক থাকায় স্ত্রী ইয়াছমিন আক্তারের লাশ ময়তদন্ত শেষে গ্রহণ না করায় তার মরাদেহ কুমিল্লার বাংগরায় নিজ গ্রামে দাফন করা হয়েছে। সৌদি প্রবাসী সাইফুল ইসলাম ঘটনা দিন থেকে পলাতক ও সৌদিতে চলে যাওয়ার পায়তারা করছেন বলে মামলার বাদী আব্দুল আওয়াল সাংবাদিকদেরকে জানান।