ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের উদ্যোগে স্বাস্থ্যকর্মী ও ব্যবসায়ীদের জন্য ৭২০০ পিস মাস্ক ও ৭২০ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার হস্তান্তর

0
232

ব্রাহ্মণবাড়য়িা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের উদ্যোগে ও কোকা-কোলা ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় জেলার কোভিড-১৯ কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারী সম্মুখ সারির স্বাস্থ্যকর্মী ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের মাঝে বিতরণের লক্ষে ৭২০০ পিস মাস্ক ও ৭২০ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় ও আনন্দবাজার ব্যবসায়ী কমিটিকে প্রদান করা হয়। জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের পক্ষে জেলা সিভিল সার্জন ডা: মো: একরাম উল্লাহ ৫০০০ পিস সার্জিকাল মাস্ক ও ৫০০ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও আনন্দবাজার ব্যবসায়ী কমিটির পক্ষে সাধারণ সম্পাদক মো: জালালউদ্দিন ২২০০ পিস মাস্ক ও ২২০ পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার গ্রহণ করেন।

জেলার ৫০০ জন স্বাস্থ্যকর্মী ও ২২০ জন হকারের মাঝে জনপ্রতি ১০টি করে মাস্ক এবং ১টি করে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করা হবে বলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট কর্তৃপক্ষ জানায় ।

০৩ আগস্ট মঙ্গলবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শফিকুল আলম, এম.এসসি এর পক্ষে ইউনিট লেভেল অফিসার খ: এনায়েতুল্লাহ একরাম পলাশ আনুষ্ঠানিকভাবে মাস্ক ও হ্যান্ডস্যানিটাইজার হস্তান্তর করেন।

জেলা সিভিল সার্জন অফিস ও আনন্দবাজার ব্যবসায়ী কমিটি কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মাস্ক ও হ্যান্ডস্যানিটাইজার হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা সিভিল সার্জন ডা: মো: একরাম উল্লাহ, আনন্দবাজার ব্যবসায়ী কমিটি সাধারণ সম্পাদক মো: জালালউদ্দিন, জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি তাজ মোহাম্মদ ইয়াসিন, আওয়ামীলীগ নেতা কাজী মোবারক হোসেন, বাবুল মেম্বার, ব্যবসায়ী জয়নাল আবেদিন, শাহানুর রহমান, মো: শাহজাহান সাজু ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের দপ্তর সম্পাদক ও সাবেক যুব প্রধান, জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট, শরিফুল আলম, পিএস টু চেয়ারম্যান, জেলা পরিষদ ও জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট ব্রাহ্মণবাড়িয়া, তানভীর রশিদ, যুব প্রধান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট, মো: আরিফুর রহমান মনির, হিসাব রক্ষক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট।

জেলা সিভিল সার্জন ডা: মো: একরাম উল্লাহ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট কোভিড-১৯ শুরু হওয়ার পর থেকেই জেলা স্বাস্থ্য বিভাগকে সহযোগিতা করে আসছে। রেড ক্রিসেন্টের দক্ষ যুব ও স্বেচ্ছাসেবকরা চলমান কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রমে স্বাস্থ্যকর্মীদের সাথে একত্রে কাজ করে যাচ্ছে, যা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। তিনি বলেন, আগামী ০৭ আগস্ট থেকে সারাদেশের ন্যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় শুরু হতে যাওয়া কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণকারী স্বাস্থ্যকর্মীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এই মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। যথাসময়ে জেলা স্বাস্থ্যবিভাগকে সহযোগিতা করার জন্য আমি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাই।

আনন্দবাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো: জালালউদ্দিন বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ব্যবসায়ীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় রেড ক্রিসেন্টের মাস্ক ও হ্য্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদান কার্যক্রম অত্যন্ত প্রশসংনীয় একটি উদ্যোগ।